চকবাজারে ইফতার তৈরি পোড়া তেল ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে

সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টি। ঢাকার অনেক সড়কেই জলাবদ্ধতা। পুরান ঢাকার অবস্থা আরও খারাপ। অধিকাংশ এলাকায় জমেছে কাদামাটি। তাই বলে কি আর জনজীবন থেমে থাকবে? বৃষ্টিবিঘ্নিত এই দিনে রাজধানীর ইফতার বাজারে অভিযান চালায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) ও মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি)। প্রতিদিনের মতো আজও চকবাজারে ঐতিহ্যবাহী ইফতার বিক্রেতারা খোলা আকাশের নিচে অস্বাস্থ্যকর উপায়ে ইফতার তৈরি করছেন।

সোমবার দুপুর আড়াইটা থেকে রাজধানীর চকবাজারে শুরু হয় অভিযান। অভিযানে নেতৃত্ব দেন ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মশিউর রহমান। উপস্থিত ছিলেন পুলিশের চকবাজার থানা ও মহানগর গোয়েন্দার (ডিবি) সদস্যরা।দেখা যায়, বিক্রেতারা চকবাজারের সড়কে ওপরে ড্রেনের পাশে খোলা অবস্থায় ইফতার তৈরি করছেন। ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযানের সঙ্গে সঙ্গে দোকানিরা ইফতারের ওপর প্লাস্টিকের স্বচ্ছ কাভার দিয়ে দেয়। তাড়াহুড়ো করে হ্যান্ড গ্লাভস পরেছেন অনেকে।

অভিযানে প্রায় প্রতিটি দোকানেই পোড়া (কালো) তেল দিয়ে ইফতার তৈরি করতে দেখা যায়। সন্দেহ হওয়ায় কয়েকটি দোকানে ম্যাজিস্ট্রেট ইফতার সামগ্রী নাকে নিয়ে দেখেন সেগুলো থেকে গন্ধ বের হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো গতকালের কিংবা আগের। সড়কের ওপর বসা ছোট একটি খেজুরের দোকানে গিয়ে দেখেন, খেজুরের মধ্যে অধিকাংশই পচা।

গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য ছিল, চকবাজারের আমানিয়া রেস্টুরেন্টে অস্বাস্থ্যকর ও বাসি ইফতার বিক্রি হয়। তবে চকবাজারে ম্যাজিস্ট্রেট ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে রেস্টুরেন্ট বন্ধ করে এদিক ওদিক ঘুরতে থাকে তারা। এসময় একজন কর্মকর্তাকে ধরে ৩ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। তবে তার নাম প্রকাশ করা হয়নি।

অভিযানে মোট ৫টি দোকানকে মোট ৯২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে বিসমিল্লাহ বিরিয়ানী হাউজকে ৫০ হাজার জরিমানা করা হয়। বাকি ৪টি মৌসুমি দোকানদার।

ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মশিউর রহমান বলেন, পোড়া তেল ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ইফতার তৈরির অভিযোগে ৫ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়। এছাড়াও ডিএমপির অভিযানে অসহযোগিতা করায় আমানিয়া রেস্টুরেন্টের একজনকে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। ডিএমপি’র ভেজাল বিরোধী এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এর আগে রোববার মশিউর রহমানের নেতৃত্বে মগবাজারের নিউ ইস্কাটন রোডে রেড অর্কিড ও মিকাডো চাইনিজ রেস্টুরেন্ট থেকে পচা ও বাসি খাবার রাখার দায়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

image_printপ্রিন্ট

শেয়ার

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।