পিরামিডের ভিতরে পিরামিড, তারও ভিতরে পিরামিড, রহস্য এই মুহূর্তে জমজমাট মেক্সিকোয়

পিরামিডের ভিতরে পিরামিড, তারও ভিতরে পিরামিড। রহস্য এই মুহূর্তে জমজমাট মেক্সিকোয়। দেশটির বিখ্যাত প্রত্নত্তত্বের চিচেন ইৎজা-র মধ্যমণি এলো কাস্তিল্লো বা কুকুলকান নামের পিরামিডকে ঘিরেই ঘনীভূত হয়েছে রহস্য। জানা গেছে, মায়া সভ্যতার নিদর্শন এই পিরামিডের ভিতরে আরও একটি পিরামিড আছে। কিন্তু তার ভিতরে যে আরও একটি পিরামিড রয়েছে। প্রত্নতাত্ত্বিকরা মনে করছেন, এই তৃতীয় পিরামিডের রহস্য উন্মোচিত হলে এই পিরামিডকে ঘিরে চলিত থাকা বহু প্রশ্নেরই সমাধান হবে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম কিউরিওসিটি.কম-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাই-ডাইমেনশনাল ইলেক্ট্রিক রেজিস্টিভিটি টোমোগ্রাফি বা সংক্ষেপে ইআরটি-থ্রিডি নামক এক পদ্ধতি প্রয়াগ করেই জানা গেছে এই তৃতীয় পিরামিডের অবস্থান।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জিওফ্রে ব্রাসওয়েল জানিয়েছেন, ১৯৪০-এর দশকে কুকুলকানের নিচে দ্বিতীয় পিরামিডটির অবস্থানের কথা জানা যায়। কিন্তু, পিরামিডের কাঠামো ততটা সবল ছিল না বলে তেমন অনুসন্ধান চালানো যায়নি। দ্বিতীয় পিরামিডের ভিতরে কিছু একটা রয়েছে, একথা অনুমান করা গেলেও, তা নিয়ে বেশি দূর এগোনো যায়নি সেই সময়ে। এখন নতুন প্রযুক্তি কোন সত্যকে তুলে আনে সেটাই দেখার। প্রসঙ্গত, আনুমানিক ৯-১২ শতকে নির্মিত হয়ে এই পিরামিড। প্রত্নতাত্ত্বিকদের মতে, এটি একটি মন্দির।

image_printপ্রিন্ট

শেয়ার

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।